banner

জ্বালানি না থাকায় বিধ্বস্ত হয়েছে ফুটবলারদের বহনকারী বিমানটি

NewsWorld365 NewsWorld365 , December 1, 2016
crush

নিউজওয়ার্ল্ড ডেস্ক:

ব্রাজিলের শ্যাপাকোয়েন্স ক্লাবের ফুটবলারদের বহনকারী বিমানটি জ্বালানি সঙ্কটের কারণেই বিধ্বস্ত হয়েছে। বিধ্বস্ত হওয়ার আগ মুহূর্তে পাইলট ও এয়ার ট্রাফিক কন্টোল রুমের কথোপকথন থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এ কথোপকথনের ফাঁস হওয়া অডিওটি বুধবার স্থানীয় একটি রেডিও চ্যানেলে প্রচারিত হয়। জরুরিভিত্তিতে বিমানটিকে ল্যান্ড করানোর জন্য বারবার অনুমতি চাইতে শোনা গেছে পাইলটকে।

মঙ্গলবার কলম্বিয়ার পাহাড়ি এলাকায় বিমানটি বিধ্বস্ত হলে ৭৭ জন নিহত হন। শ্যাপাকোয়েন্স ক্লাবের সব ফুটবলার, কর্মকর্তা, সাংবাদিকরা ছিলেন এ বিমানে। মাত্র দুজন ফুটবলারসহ মোট ছয়জন এ দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে পেরেছেন।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মর্যাদাপূর্ণ ক্লাব টুর্নামেন্ট কোপা সুদামেরিকানার ফাইনাল খেলতে কলম্বিয়া যাচ্ছিলেন ফুটবলাররা।

বিধ্বস্ত হওয়ার আগে পাইলট বারবার কন্ট্রোল রুমকে সতর্কবার্তা দিচ্ছিলেন। পুরো বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন  হয়ে গেছে’ এবং জ্বালানি নেই’; বলতে শোনা গেছে পাইলটকে। অডিওটি শেষ হওয়ার কয়েক সেকেন্ড আগে পাইলট বলছিলেন, তিনি এই মুহূর্তে ৯ হাজার ফুট উপরে আছেন। এরপরই বিমানের সঙ্গে কন্ট্রোল রুমের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

বিমানটিকে বাঁয়ে ঘুরিয়ে প্রায় নয় মাইল দূরের একটি বিমানবন্দরে ল্যান্ড করানোর পরামর্শ দেয়া হয় কন্ট্রোল রুম থেকে। কিন্তু পর্যাপ্ত জ্বালানির অভাবে তার আগেই পাহাড়ে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

কলম্বিয়ার সামরিক বাহিনীর একজন মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, বিমানে বিস্ফোরণের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বিমানে পর্যাপ্ত জ্বালানি না থাকাকে তিনি সন্দেহজনক’ বলেও উল্লেখ করেছেন।

কেন বিমানে জ্বালানি সঙ্কট দেখা দিয়েছিল তা এখনো নিশ্চিত নয়। জ্বালানি ট্যাঙ্কে ছিদ্র বা বিমান ছাড়ার আগে পর্যাপ্ত জ্বালানি সংগ্রহ না করার কারণেও এটি হতে পারে ধারণা করা হচ্ছে। তদন্তকারীরা অবশ্য এ বিষয়ে এখনো কিছু বলছেন না। তদন্ত শেষ করতে প্রায় একমাসের মতো লাগতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তখন সব কারণ জানার আশা প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে শ্যাপাকোয়েন্সের ঘরের মাঠে ও কলম্বিয়ার যে স্টেডিয়ামে ফাইনাল খেলার কথা ছিল তাদের, সেই দুই স্টেডিয়ামেই ভক্তরা জড়ো হয়ে নিহত ফুটবলারদের প্রতি শোক ও শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। তাদের সম্মানে মোমবাতি জালিয়েছেন ভক্তরা। দুটি স্টেডিয়ামই ছিল কানায় কানায় পূর্ণ।

নিজেদের ঘরের মাঠে শ্যাপাকোয়েন্সের ভক্তদের কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা গেছে। অনেকে কান্নার জন্য কথা বলতে পারছিলেন না। ভক্তরা একজন আরকেজনকে জড়িয়ে ধরে কেঁদেছেন। বলেছেন, এখনো বিশ্বাস করতে পারছেন না তাদের প্রিয় ফুটবলাররা আর নেই। যে মাঠে তারা শিরোপার উৎসব করতেন, সে মাঠ এখন ভেসে যাচ্ছে চোখের পানিতে।

সূত্র: বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


eight + 5 =

নিউজওয়ার্ল্ড৩৬৫ তথ্যসমগ্র

প্রধান সম্পাদক: জগলুল আলম ফোন: ৪১০-৩৩০-১৪৩১
সম্পাদক: আহমেদ মূসা ইমেইল: editor@newsworld365.com
বার্তা সম্পাদক: কৃষ্ণ কুমার শর্মা ইমেইল: newsed@newsworld365.com
ঢাকা অফিস: ০১৭১৯৪০০৯৯২
ইমেইল: nworld365@gmail.com
বিজনেস এক্সিকিউটিভ: সঞ্জিত ঘোষ ইমেইল: accounts@newsworld365.com
জনসংযোগ: আলী আকবর ইমেইল: news@newsworld365.com
ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত তথ্য: nworld365@gmail.com
অফিস: ৩৩-২৯ স্ট্রিট-১৩ , লং আইল্যান্ড সিটি, এনওয়াই ১১১০৬